এই মাত্র

ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে দোষী ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্স

dhaka-Gবাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) ম্যাচ পাতানোর শুনানির পর ম্যাচ দোষী প্রমাণিত হয়েছেন ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শিহাব চৌধুরী।

বুধবার এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

নির্দোষ প্রমাণিত হয়েছেন জাতীয় দলের সাবেক বাঁহাতি স্পিনার মোহাম্মদ রফিক, বাঁহাতি স্পিনার মোশাররফ হোসেন ও পেসার মাহমুবুল আলম। ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্সের চেয়ারম্যান সেলিম চৌধুরী ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা গৌরব রাওয়াদ, ইংল্যান্ডের ক্রিকেটার ড্যারেন স্টিভেন্সও নির্দোষ প্রমাণিত হয়েছেন।

গত অগাস্ট থেকে ক্রিকেটে সাময়িক নিষিদ্ধ ছিলেন মোশাররফ ও মাহবুবুল। ট্রাইব্যুনাল জানিয়েছে, নির্দোষ প্রমাণিত হওয়ায় তাদের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা উঠে গেছে।

ম্যাচ পাতানোর স্বীকারোক্তি দেয়া মোহাম্মদ আশরাফুল ও শ্রীলঙ্কার কৌশল লুকুয়ারাচ্চির ব্যাপারে এখনো কোনো রায় জানায়নি ট্রাইব্যুনাল।

শিহাব চৌধুরীর বিরুদ্ধে আনা তিনটি অভিযোগের একটিতে তিনি দোষী প্রমাণিত হয়েছেন।

সেলিম চৌধুরীর চারটি, গৌরব রাওয়াদ পাঁচটি, ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্সের বোলিং কোচ মোহাম্মদ রফিক তিনটি এবং দলের তিন ক্রিকেটার মোশাররফ, মাহবুবুল ও স্টিভেন্স নির্দোষ প্রমাণিত হয়েছেন।

১০ নভেম্বর প্যানেলের চেয়ারম্যান সাবেক বিচারপতি খাদেমুল ইসলাম চৌধুরীকে আহ্বায়ক করে তিন সদস্যের দুর্নীতি বিরোধী ট্রাইব্যুনাল গঠন করেন। অপর দুই সদস্য হলেন আজমামুল হোসেন কিউসি ও সাবেক ক্রিকেটার শাকিল কাসেম।

গত ১৩ অগাস্ট রাজধানীর একটি হোটেলে আইসিসি ও বিসিবির যৌথ সংবাদ সম্মেলনে আইসিসির প্রধান নির্বাহী ডেভ রিচার্ডসন জানান, বিপিএলে ম্যাচ পাতানো নিয়ে তদন্তের পর ৯ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়েছে।

গত ১৯ জানুয়ারি থেকে চূড়ান্ত শুনানি শুরু হয়। বুধবার তারই রায় দিল ট্রাইব্যুনাল।

Check Also

মেসি-সাম্পাওলিকে নিয়ে পেলের তিরস্কার

আর্জেন্টিনা তারকা লিওনেল মেসি দারুণ খেলোয়ার এবং নতুন কোচ জর্জ সাম্পাওলিও অনেক ভালো ও বড় …

Powered by keepvid themefull earn money